রাত পোহালেই হাজার ইউনিয়নে ভোট – ২৪ বাংলাদেশ নিউজ
রবিবার , ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ১৯শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন ও বিচার
  4. আন্তর্জাতিক
  5. এক্সক্লুসিভ
  6. খুলনা
  7. খেলা
  8. গাজীপুর
  9. চট্টগ্রাম
  10. চাকুরীর খবর
  11. ঢাকা
  12. ফটোগ্যালারি
  13. বরিশাল
  14. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
  15. বিনোদন

রাত পোহালেই হাজার ইউনিয়নে ভোট

প্রতিবেদক
নিউজ ডেস্ক
নভেম্বর ২৮, ২০২১ ১২:০২ পূর্বাহ্ণ

রাত পোহালেই তৃতীয় ধাপের এক হাজারটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। এরই মধ্যে শনিবার সকাল থেকেই নির্বাচনি কার্যালয় থেকে সরবরাহ করা হয় ভোটের নানা সরঞ্জাম। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় যা কেন্দ্রে নিয়ে যাচ্ছেন কর্মকর্তারা।

সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন আয়োজনে সব ধরনের প্রস্তুতি শেষ করেছে নির্বাচন কমিশন। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি মাঠে থাকবেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

ফেনী জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা অফিসার নাছির উদ্দিন পাটওয়ারী জানান, ভোট গ্রহণের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভোটের লক্ষ্যে জোরদার করা হয়েছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

এদিকে এবার ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার সাতটি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। চরফ্যাশনের ওসমানগঞ্জ, আবদুল্লাহপুর, রসুলপুর, চর মানিকা, অধ্যক্ষ নজরুল নগর, কুকরি-মুকরি ও আবু বকরপুর ইউপি ভোট হচ্ছে। তবে এসব ইউপির মধ্যে পাঁচটিতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছে। এর ফলে সাত ইউপিতে মেম্বার (সদস্য ও সংরক্ষিত সদস্য) পদে নির্বাচন হলেও চেয়ারম্যান পদে ভোট হবে দুই ইউনিয়নে। ইউনিয়ন দুটি হলো- কুকরি-মুকরি ও ওসমানগঞ্জ।

সাত ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে চারজনসহ ২৫৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এসব ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা এক লাখ ১১ হাজার ৬৩৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫৮ হাজার ৩২৮ জন। নারী ভোটার ৫৩ হাজার ৩০৬ জন।

এদিকে সাত ইউপির ৬৯টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ২৮টিকে ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করেছে জেলা নির্বাচন অফিস। ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রগুলোর মধ্যে ওসমানগঞ্জে চারটি, আবদুল্লাহপুরে চারটি, রসুলপুরে তিনটি, চর মানিকায় সাতটি, অধ্যক্ষ নজরুল নগরে চারটি, কুকরি-মুকরিতে তিনটি এবং আবু বকরপুরে তিনটি কেন্দ্র রয়েছে। শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণের লক্ষ্যে চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। নির্বাচনী মাঠে থাকবে পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি ও কোস্টগার্ড সদস্যরা। এছাড়াও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, মোবাইল টিম ও স্টাইকিং ফোর্স থাকবে।

ভোলা জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আলাউদ্দিন আল মামুন বাংলানিউজকে বলেন, শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণের লক্ষ্যে আমাদের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। ইতোমধ্যে কেন্দ্রগুলোতে নির্বাচনী সামগ্রী প্রেরণ করা হয়েছে।

তিন ধাপের এই নির্বাচনকে ঘিরে সহিংসতায় প্রাণ হারিয়েছেন অর্ধশতাধিক মানুষ। সে বিষয়টি মাথায় রেখে এবং শান্তিপূর্ণ পরিবেশের জন্য নেয়া হয়েছে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা। ভোটকেন্দ্রে বিজিবি, আনসার ও পুলিশ সদস্য ছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রে থাকবে র‍্যাব।

তৃতীয় ধাপে এক হাজার ইউনিয়ন পরিষদে ৫০ হাজার ১৪৬ জন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী রয়েছেন। এরমধ্যে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যানসহ ৫৬৯ জন নির্বাচিত হয়েছেন। এ নিয়ে তিন ধাপে ১০৪৩ জন বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। ইসি’র জনসংযোগ শাখা থেকে শুক্রবার তৃতীয় ধাপে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিতদের সংখ্যা প্রকাশ করা হয়।

সর্বশেষ - এক্সক্লুসিভ