শনিবার , ৭ মে ২০২২ | ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন ও বিচার
  4. আন্তর্জাতিক
  5. এক্সক্লুসিভ
  6. খুলনা
  7. খেলা
  8. চট্টগ্রাম
  9. চাকুরীর খবর
  10. ঢাকা
  11. ফটোগ্যালারি
  12. বরিশাল
  13. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
  14. বিনোদন
  15. বিবিধ

মহাসড়কে গাড়ির চাপ, ফেরিঘাটে যানজটে ভোগান্তি

প্রতিবেদক
অনলাইন ডেস্ক
মে ৭, ২০২২ ১২:২৪ অপরাহ্ণ

ঈদ উদযাপন শেষে কর্মস্থলে ফিরতে শুরু করেছে মানুষ। তাই বিভিন্ন সড়ক-মহাসড়কে বাড়ছে রাজধানীমুখী যানবাহনের চাপ। এরই মধ্যে দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে সৃষ্টি হয়েছে দীর্ঘ ৮ কিলোমিটার যানজট। ঘণ্টার পর ঘণ্টা নদী পারের অপেক্ষায় রয়েছে যাত্রীরা।

 

শনিবার সকাল থেকে ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে যানবাহনের চাপ বেড়েছে। তবে মহাসড়কে গাড়ির চাপ থাকলেও কোথাও যানজট নেই।

 

তবে অতিরিক্ত ভাড়ায়ও যানবাহন না পেয়ে দাঁড়িয়ে ঢাকার আসছে সাধারণ মানুষ। এছাড়া খোলা ট্রাক, পিকআপ ও সিএনজিচালিত অটোরিকশায় যাচ্ছে মানুষ।

 

মহাসড়কে মোটরসাইকেল ও ব্যক্তিগত গাড়ির সংখ্যাও বৃদ্ধি পেয়েছে। সেইসাথে আছে বাড়তি ভাড়া নেয়ার অভিযোগ।

 

যানবাহনের বাড়তি চাপে গাজীপুরের মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে যানবাহনের জটলা দেখা গেছে। তবে যানজট এড়াতে মহাসড়কে পুলিশ কাজ করছে। আর যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লা অংশে।

 

এদিকে, সকালে যানবাহনের চাপ বেড়েছে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ঘাটে। ঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে প্রায় ৮ কিলোমিটার গাড়ির জট তৈরি হয়েছে। ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষায় রয়েছে যাত্রী ও চালকরা। ধীরে ধীরে যানবাহনের চাপ আরো বাড়তে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

 

বিআইডব্লিউটিসি কর্তৃপক্ষ জানায়, কর্মস্থলে ফেরা মানুষের নদী পারাপারে যেন ভোগান্তি না হয় সেজন্য চালু রাখা হয়েছে ২১টি ফেরি।

 

কর্মস্থলে ফেরা মানুষের ভিড় বেড়েছে শরীয়তপুরের মাঝিরঘাট ফেরিঘাটে। ফেরিঘাটের সংযোগ সড়ক থেকে পূণর্বাসন কেন্দ্র পর্যন্ত প্রার ২ কিলোমিটার ব্যাপী তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

 

এদিকে, যানবাহনের চাপ বাড়ায় ভোগান্তি সৃষ্টি হয়েছে মাদারীপুরের বাংলাবাজার ফেরিঘাটে।

 

এদিকে, সকালে সদরঘাটে যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড় দেখা যায়। এসময় যাত্রীরা লঞ্চগুলোতে অতিরিক্ত যাত্রী বহন ও টিকিট কালোবাজারিসহ নানা অভিযোগ করেন।

 

ঈদের আনন্দ ও ছুটি শেষে জীবিকার তাগিদে আবারো কর্মস্থলে ফিরছে দেশের মানুষ। ভোর থেকে ঢাকায় ফেরা প্রায় সব লঞ্চেই দেখা যায় যাত্রীর উপচে পড়া ভিড়।

 

যাত্রীদের বেশিরভাগই বরিশাল, পটুয়াখালী, বরগুনা, ভোলাসহ আশপাশের জেলা থেকে ফিরছেন। বাড়তি ভাড়া ও টিকিট কালোবাজারির অভিযোগ করেন তারা।

 

ঢাকায় ফেরা যাত্রী চাপ থাকলেও দক্ষিণবঙ্গগামী যাত্রী একেবারেই নেই বলছে লঞ্চ কর্তৃপক্ষ। এ অবস্থায় খালি লঞ্চ ফিরে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন তারা। রোববার থেকে সব অফিস খুলে যাওয়ায় বিকেলে ও আগামীকাল ভোরে যাত্রী চাপ বাড়বে বলে ধারণা লঞ্চ কর্তৃপক্ষের।

 

ভোর থেকে সকাল সাড়ে ৭টা পর্যন্ত ৭১টি লঞ্চ দক্ষিণবঙ্গ থেকে সদরঘাটে পৌঁছায় বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

সূত্রঃ ইন্ডিপেন্ডেন্ট টিভি

সর্বশেষ - ঢাকা