মূল্যস্ফীতিকে বড় চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখছেন অর্থমন্ত্রী মুস্তাফা কামাল – ২৪ বাংলাদেশ নিউজ
শুক্রবার , ১০ জুন ২০২২ | ১৯শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন ও বিচার
  4. আন্তর্জাতিক
  5. এক্সক্লুসিভ
  6. খুলনা
  7. খেলা
  8. গাজীপুর
  9. চট্টগ্রাম
  10. চাকুরীর খবর
  11. ঢাকা
  12. ফটোগ্যালারি
  13. বরিশাল
  14. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
  15. বিনোদন

মূল্যস্ফীতিকে বড় চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখছেন অর্থমন্ত্রী মুস্তাফা কামাল

প্রতিবেদক
২৪ বাংলাদেশ নিউজ বার্তাকক্ষ
জুন ১০, ২০২২ ৯:১২ পূর্বাহ্ণ

বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল ২০২২-২৩ অর্থবছরের জন্য মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ এবং অভ্যন্তরীণ বিনিয়োগ বাড়ানোসহ ছয়টি বড় চ্যালেঞ্জের কথা জানিয়েছেন।

 

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) প্রথমবারের মতো একটি অডিও-ভিজ্যুয়াল মাধ্যমে তিনি সম্পূর্ণ বাজেট উপস্থাপন করেছেন।

 

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল বলেন, “শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতের প্রকল্পসমূহ নির্ধারিত সময়ে সমাপ্তি নিশ্চিত করা, স্থানীয় মূল্য সংযোজন করের সংগ্রহ বৃদ্ধি, করদাতা ব্যক্তির সংখ্যা বৃদ্ধি, টাকার বিনিময় হারে স্থিতিশীলতা বজায় রাখা, বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভকে ঝুঁকিমুক্ত পর্যায়ে রাখাও প্রধান চ্যালেঞ্জগুলোর মধ্যে রয়েছে।”

 

অর্থমন্ত্রী মুস্তাফা কামাল আশাবাদ ব্যক্ত করেন, “আগামী অর্থবছরে রাশিয়া-ইউক্রেন দ্বন্দ্বের কারণে সৃষ্ট প্রতিকূল পরিস্থিতি কার্যকরভাবে মোকাবিলা করে বাংলাদেশ উন্নয়নের পথে ফিরতে পারবে।”

 

অর্থমন্ত্রী বলেন, “এবছরের বাজেটের অগ্রাধিকার হল-সব স্তরের মানুষের জীবনযাত্রার উন্নতি করা, নিরবচ্ছিন্ন অর্থনৈতিক উন্নয়ন এবং কর্মসংস্থান সৃষ্টি, কোভিড-১৯ মহামারি ও রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে উদ্ভূত অর্থনৈতিক প্রভাব মোকাবিলার সাথে সাথে, মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ করা।”

 

মুস্তাফা কামাল বলেন, “এই চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবেলায় আমাদের খুব বাস্তববাদী হতে হবে। কারণ সঠিকভাবে এগুলোর মোকাবেলায় ব্যর্থতা, সামষ্টিক অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতাকে অস্থিতিশীল করতে পারে। আমাদের প্রধান কৌশল হবে, চাহিদা হ্রাস করে সরবরাহ বাড়ানো। তাই আমদানি নির্ভর এবং কম গুরুত্বপূর্ণ সরকারি ব্যয় বন্ধ বা হ্রাস করা হবে।”

 

অর্থমন্ত্রী বলেন, “উচ্চ ও মাঝারি অগ্রাধিকারের প্রকল্পের বাস্তবায়ন বাড়াতে, কম অগ্রাধিকারের প্রকল্প বাস্তবায়নের গতি কমানো হবে।জীবাশ্ম জ্বালানি, গ্যাস, বিদ্যুৎ ও রাসায়নিক সারের বিক্রয়মূল্য পর্যায়ক্রমে এবং স্বল্প পরিসরে সমন্বয় করা হবে।”

 

বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী বলেন, “রাজস্ব সংগ্রহ কার্যক্রম এবং ভ্যাট ও আয়কর কভারেজ বৃদ্ধির লক্ষ্যে, কর সংগ্রহ সংক্রান্ত অটোমেশন প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করা হবে। বিলাসবহুল এবং কম প্রয়োজনীয় পণ্যের আমদানি নিয়ন্ত্রণ করা হবে। ডলারের বিপরীতে টাকার বিনিময় হার প্রতিযোগিতামূলক রাখা হবে।”

সর্বশেষ - এক্সক্লুসিভ