শনিবার , ১৯ নভেম্বর ২০২২ | ২৬শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন ও বিচার
  4. আন্তর্জাতিক
  5. এক্সক্লুসিভ
  6. খেলা
  7. চাকুরীর খবর
  8. ফটোগ্যালারি
  9. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
  10. বিনোদন
  11. বিবিধ
  12. রাজধানী
  13. রাজনীতি
  14. শিক্ষা
  15. শিল্প ও সাহিত্য

অনলাইনে হয়রানি বাড়ছেই ব্ল্যাকমেইল করে কৌশলে বিপুল অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে হ্যাকাররা

প্রতিবেদক
বার্তা কক্ষ
নভেম্বর ১৯, ২০২২ ২:৪৩ অপরাহ্ণ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে ঘিরে বাড়ছে প্রতারণার ঘটনা। ব্ল্যাকমেইল করে কৌশলে বিপুল অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে হ্যাকাররা। পরিসংখ্যান বলছে, ইন্টারনেটে এমন ভুক্তভোগীদের মধ্যে গেলো ১ বছরে অন্তত ৫১ শতাংশ নানাভাবে সাইবার বুলিংয়ের শিকার। গবেষণা বলছে, আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর দ্বারস্থ হয়ে প্রত্যাশা অনুযায়ী ফল পাননি ৫৫ শতাংশের বেশি। তবে অভিযোগ পেলে পদপেক্ষের কথা বলছে পুলিশের সাইবার বিভাগ।

কলেজ শিক্ষার্থী সুমাইয়া, সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে পরিচিত একজনের পাঠানো লিংকে ক্লিক করতেই হারান নিজের আইডি। নিয়ন্ত্রণ চলে যায় হ্যাকারদে কাছে। তারই আইডি থেকে শুরু হয় নানাভাবে ব্ল্যাকমেইল করা।

স্মার্টফোন ব্যবহারকারী বিভিন্ন বয়স ও শ্রেণি-পেশার মানুষকেই কোন না কোনসময় পড়তে হচ্ছে এ ধরনের পরিস্থিতিতে৷ অনেকেই খোয়াচ্ছেন অর্থ, হারাচ্ছেন সামাজিক মর্যাদা।

সাইবার ক্রাইম অ্যাওয়ারনেস ফাউন্ডেশনের গবেষণা বলছে, নেট দুনিয়ায় বিভিন্নভাবে হয়রানিতে পড়া ভুক্তভোগীদের অন্তত ৫১ শতাংশই সাইবার বুলিং এর শিকার । তথ্য হাতিয়ে নেয়া, পর্ণোগ্রাফি, বিকৃত ছবি ও মিথ্যা তথ্য ছড়ানোর অভিযোগ সবচেয়ে বেশি। ইন্টারনেটে ওঁৎ পেতে থাকা হ্যাকারদের প্রতিরোধে নিরাপত্তা সেটিংসে জোর দিচ্ছেন আইটি বিশেষজ্ঞরা।

গবেষণার তথ্য বলছে, এ ধরনের ঘটনায় ভুক্তভোগীদের মধ্যে আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর দ্বারস্থ হয়ে প্রত্যাশিত ফল পেয়েছেন মাত্র ৭ শতাংশ, আর প্রত্যাশা অনুযায়ী ফল পাননি ৫৫ শতাংশের বেশি। তবে পুলিশের দাবি, প্রতারণার শিকার বেশিরভাগই আসেন না অভিযোগ জানাতে।

সাইবার ক্রাইম অ্যাওয়ারনেস ফাউন্ডেশনের ২০২২ এর গবেষণা তথ্যমতে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হ্যাকিং ২৪ শতাংশ, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচার ১৯ শতাংশ, পর্নোগ্রাফি ও ছবি বিকৃত করে প্রচার ১০ শতাংশ, পণ্য কিনতে গিয়ে প্রতারণার শিকার ১৫ শতাংশ, অনলাইনে মেসেজ পাঠিয়ে হুমকি – ১১ শতাংশ, কপিরাইট আইনের লঙ্ঘন ৫ শতাংশ, আইডি নিষ্ক্রিয় করা ও ভুয়া আইডি তৈরি ২ শতাংশ, অনলাইনে কাজ দেয়ার নামে প্রতারণা ২ শতাংশ।

সরকারি হিসেবে দেশে বর্তমানে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী রয়েছেন প্রায় ১৩ কোটি। যাদের অনেকেই প্রযুক্তি নিরাপত্তায় অদক্ষ।

সর্বশেষ - সারাবাংলা